নতুন করে রাজ্যে করোনার ঢেউ আটকাতে সদ্য বিলেতফেরতদের খোঁজ রাজ্যে

Mysepik Webdesk: কয়েকদিন ধরেই ইংল্যান্ডে নতুন করে বৃদ্ধি পেয়ে চলেছে করোনার প্রকোপ। বিশেষজ্ঞদের দাবি, জিনের পরিবর্তন করে তৈরি হওয়া ওই নতুন ধরণের করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ক্ষমতা আগের থেকে আরও ৭০ শতাংশ বেশি। ফলে উপায়ান্তর না দেখে ফের ইংল্যান্ডের একাংশে লকডাউনের ঘোষণা করে সরকার। শনিবার একটি সাংবাদিক সম্মেলনে বরিস জনসন বলেন, “খুব দুঃখের সঙ্গে জানাচ্ছি, আমাদের ক্রিসমাস পালনের পরিকল্পনা বদলাতে হবে। এছাড়া অন্য কোনও বিকল্প আমার কাছে নেই।”

আরও পড়ুন: লন্ডন থেকে কলকাতায় আসা ২ যাত্রীর শরীরে করোনাভাইরাস মিলল বিমানবন্দরে, উদ্বেগ

Coronavirus West Bengal News: Biggest Single-Day Spike Takes COVID-19 Count  To 5,501, 8 More Deaths

এদিকে ভারতে ২৩ ডিসেম্বর থেকে আগামী ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ইংল্যান্ড থেকে আগত সবরকমের বিমানের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। ইংল্যান্ড থেকে যাতে ভারতে কোনও উড়ান প্রবেশ করতে না পারে, সেই বিষয়টি ইতিমধ্যেই নিশ্চিত করা হয়েছে। এই রাজ্যেও গত কয়েকদিনের মধ্যে যারা বিলেত থেকে ফিরেছেন, তাদের চিহ্নিত করার প্রক্রিয়া শুরু করে দিয়েছে রাজ্য সরকার। তাদের ট্রেস করে তাদের কাছে জানতে চাওয়া হবে তারা ১৪ দিনের আবশ্যিক কোয়ারান্টিন মানছেন কিনা।

আরও পড়ুন: বিজেপির মুখ হয়ে আজ প্রথম কেতুগ্রামে সভা করবেন শুভেন্দু

Coronavirus outbreak: Opposition cries foul as central teams monitor COVID-19  situation in West Bengal - The Financial Express

গত কয়েক দিন ধরে লন্ডন-সহ দক্ষিণপূর্ব এবং পূর্ব ব্রিটেনের একাধিক এলাকায় করোনার নতুন স্ট্রেনের খোঁজ মিলেছে। প্রাথমিক গবেষণা থেকে জানা গিয়েছে মিউটেশনের ফলে এই আরএনএ ভাইরাস আরও বেশি সংক্রামক হয়ে উঠেছে। ভাইরাসের স্পাইক প্রোটিনে বেশ কিছু নতুন মিউটেশনের জন্য ছোঁয়াচে ভাব বেড়েছে প্রায় ৭০ শতাংশ। সেই কারণেই সঠিক ভাবে কনট্যাক্ট ট্রেসিং করে যারা গত কয়েকদিন ধরে ব্রিটেন থেকে ভারতে এসেছেন, তাদের চিহ্নিত করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *