সাংবাদিক পরিচয় দেওয়ার পরেও দানিশকে খুন করেছে তালিবানরা, চাঞ্চল্যকর রিপোর্ট

Mysepik Webdesk: আফগানিস্তান সেনা ও তালিবাদের সংঘর্ষের মাঝে পড়ে অকালে প্রাণ হারিয়েছেন চিত্রসাংবাদিক দানিশ সিদ্দিকি। কিন্তু দানিশের মৃত্যু নিয়ে বৃহস্পতিবার এক মার্কিন ম্যাগাজিনে চাঞ্চল্যকর রিপোর্ট পেশ করা হয়েছে। সেই রিপোর্টে জানানো হয়েছে, দুর্ঘটনাবশত দানিশের মৃত্যু হয়নি, বরং তাঁকে ইচ্ছাকৃত গুলি করে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে। এমনকি মৃত্যুর আগেও তিনি তালিবান জঙ্গিদের নিজের পরিচয় জানিয়েছিলেন। কিন্তু চিত্রসাংবাদিক হিসেবে যাবতীয় প্রমান দেওয়ার পরেও তালিবান জঙ্গিরা তাঁকে ছাড়েনি। গুলি করে হত্যা করে পুলিৎজার পুরস্কার বিজয়ী ৩৮ বছর বয়সী দানিশ সিদ্দিকীকে।

আরও পড়ুন: আফগানিস্তানের পর ইরাক, সেনা সরাতে তৎপর আমেরিকা

মুম্বাইবাসী চিত্রসাংবাদিক দানিশ সিদ্দিকি আফগানিস্তান গিয়েছিলেন অ্যাসাইনমেন্টের কাজে। আফগানিস্তানের সেনা ও তালিবানের সংঘর্ষ চলাকালীন তিনি স্পিন বোলদাক জেলার কান্দাহারে গুলিবিদ্ধ হন। যদিও তালিবানরা তাঁর মৃত্যুর দায় অস্বীকার করেছে। তালিবানদের দাবি, তারা তাঁকে হত্যা করেননি, উল্টে দুর্ঘটনাবশত গুলি লেগে তাঁর মৃত্যু হয়। এমনকি দানিশের মৃত্যুতে শোক জ্ঞাপনও করেছিল তারা। কিন্তু রিপোর্টে বলা হচ্ছে, গুলি লেগে আহত হওয়ার পর দানিশকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি মসজিদে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই তাঁর প্রাথমিক চিকিৎসা করা হচ্ছিল। খবর পাওয়া মাত্র সেখানে পৌঁছে যায় তালিবান জঙ্গিরা। দানিশের পরিচয় জানতে চাওয়া হয়। নিজের পরিচয় দেওয়ার পরেও সেখানে দানিশকে গুলি করে তারা। তাঁর সঙ্গে থাকা আফগান সেনাদেরও গুলি করে মারে তালিবানরা।

আরও পড়ুন: তালিবান হামলা আবহে ভারত সফর বাতিল করলেন আফগানিস্তান সেনাপ্রধান

প্রসঙ্গত, জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া থেকে পড়াশুনো শেষ করার পর ফটো জার্নালিস্ট হিসেবে ২০১০ সাল থেকে কাজ শুরু করেন দানিশ সিদ্দিকী। তিনি তাঁর চাকরি জীবন শুরু করেন ইন্ডিয়া টুডের টেলিভিশনের মাধ্যমে। বিশ্বের বিভিন্ন ভয়ঙ্কর সব যুদ্ধের ছবি তিনি প্রকাশ্যে এনেছেন। এমনকি ইরাকের মসুলের যুদ্ধের ছবি তুলতেও গিয়েছিলেন তিনি। ২০১৫ সালে নেপালের ভূমিকম্প, ২০১৯-২০ এ হংকং প্রোটেস্ট ২০২০ এ দিল্লির দাঙ্গার মতো বহু ঘটনার ছবি তোলেন দানিশ। ভাল কাজের জন্য পুলিৎজার পেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু এবার কান্দাহারে সংবাদ সংগ্রহের কাজ করতে গিয়ে অকালে প্রাণ হারান তিনি।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *