করোনা রুখতে নিতে হতে পারে তৃতীয় ডোজও

Pfizer vaccine

Mysepik Webdesk: করোনাভাইরাসের বাড়বাড়ন্ত গোটা বিশ্বে। করোনাভাইরাস রুখতে ইতিমধ্যেই বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। টিকাকরণও চলছে বিশ্ব জুড়ে। ভ্যাকসিনগুলির মধ্যে সবেচেয়ে বেশি কার্যকরী ভ্যাকসিন দু’টি হল মডার্না ও ফাইজ়ারের ভ্যাকসিন। গোটা আমেরিকাজুড়ে চলছে ওই দু’টি ভ্যাকসিনের প্রয়োগ। এতদিন পর্যন্ত জানা গিয়েছে, ওই দুটি ভ্যাকসিনের পর পর দু’টি ডোজ নিলেই করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিহত করা সম্ভব। কিন্তু সম্প্রতি ফাইজারের সিইও একটি সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, দুটি নয়, প্রয়োজনে তিনটি ডোজ নিতে হতে পারে করোনাকে রুখতে।

আরও পড়ুন: লখনউয়ে ২৪ ঘন্টা জ্বলছে শ্মশান, আড়াল করতে ঢেকে দেওয়া হল টিন দিয়ে

ফাইজ়ারের সিইও অ্যালবার্ট বৌরলার দাবি, করোনা সংক্রমণের পেছনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে ভাইরাসের মিউট্যান্ট স্ট্রেন। সেক্ষেত্রে এই স্ট্রেনকে মানুষের শরীরে সংক্রমণ রুখতে অনেক ক্ষেত্রেই দুটি ডোজ যথেষ্ট নয়। তাছাড়া এই ভ্যাকসিনকে অত্যন্ত শীতল অবস্থায় একটি নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করতে হয়। তাঁর মতে, একাধিক ক্ষেত্রেই দেখা গিয়েছে, করোনাভাইরাসটি নির্দিষ্ট সময়ে মিউটেশন ঘটিয়ে নিজের জিনের পরিবর্তন করে আগের চেয়ে বেশি মারাত্মক হয়ে উঠছে। তাই প্রত্যেক বছর একটি নির্দিষ্ট দিন অন্তর ভ্যাকসিন প্রয়োগ করার প্রয়োজন হয়ে পড়তে পারে। তিনি জানান, ফাইজ়ার প্রথম টিকা নেওয়ার পর তার ৯১ শতাংশেরও বেশি হয়ে যায়। দ্বিতীয় ডোজ় নেওয়ার পর পরবর্তী ৬ মাসের কার্যকরিতা আরও বেড়ে হয়ে যায় ৯৫ শতাংশ। তবে দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার ছয় মাস পর সমপরিমাণ কার্যকারিতা বজায় থাকবে কিনা, তা জানার জন্য বিজ্ঞানীদের আরও গবেষণার প্রয়োজন।

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *