Latest News

Popular Posts

টর্নেডোয় তছনছ মার্কিন মুলুকে ব্যাপক ক্ষতি

টর্নেডোয় তছনছ মার্কিন মুলুকে ব্যাপক ক্ষতি

Mysepik Webdesk: টর্নেডোয় তছনছ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। শুক্র ও শনিবার আমেরিকায় যেভাবে ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছে এই ঝড়, তাতে প্রবল ক্ষতি হয়েছে। এখন পর্যন্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৬টি রাজ্য ৩০টিরও বেশি টর্নেডোর তাণ্ডবে আক্রান্ত হয়েছেন বহু। শতাধিক মানুষের মৃত্যুর খবরও পাওয়া গিয়েছে। শতাধিক মানুষ আহত হয়েছেন বলেও জানা গেছে। খোদ কেন্টাকি রাজ্যে ৮০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। অনেকে এখনও ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়ে রয়েছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে জরুরি অবস্থা জারি করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

আরও পড়ুন: জেনারেল রাওয়াতের মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ প্রাক্তন পাক মেজরের

ঝড়ের কারণে অনেক এলাকায় বিল্ডিংও পর্যন্ত ধসে পড়েছে। ধ্বংসাবশেষ ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে। উদ্ধারকারী দল ত্রাণ ও উদ্ধারকাজে নিয়োজিত রয়েছে। উদ্ধারকারী দল মার্কিন জনগণের কাছে ঝড়ের ধ্বংসাবশেষে আটকে পড়াদের জন্য প্রার্থনা করার এবং ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্য করার জন্য আবেদন করেছে। সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে মেফিল্ডে। জায়গাটিকে সমস্ত ঘূর্ণিঝড়ের গ্রাউন্ড জিরো বলে মনে করা হয়। মেফিল্ডে একটি মোমবাতি কারখানা ধসে পড়ে ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। কেন্টাকি রাজ্যের মেফিল্ডে নারী ও শিশুদের আশ্রয় কেন্দ্র দ্য লাইটহাউসের বাইরে মানুষকে একে অপরকে সান্ত্বনা দিতে দেখা যায়। তাঁরা প্রত্যেকেই হারিয়েছেন তাঁদের প্রিয়জনদের।

আরও পড়ুন: বিপিন রাওয়াতের মৃত্যুতে অসংবেদনশীল চিনা মুখপত্র ‘গ্লোবাল টাইমস’, জবাব প্রাক্তন ভারতীয় সেনাপ্রধানের

কেন্টাকির গভর্নর অ্যান্ডি বেসিয়ার এই ঝড়টিকে রাজ্যের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ বলে অভিহিত করেছেন। তাছাড়াও ঝড়ের ভয়ানক দাপটে আর্লিংটন, কেন্টাকিতে ঝড়ের কারণে একটি খালি ট্রেনও পর্যন্ত লাইনচ্যুত হয়ে যায়। ট্রেনের বগিও ট্রেন থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। ইলিনয় রাজ্যে অ্যামাজন কোম্পানির একটি গুদাম ধসে পড়েছে। ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়েছেন প্রায় ১০০ জন শ্রমিক। এছাড়াও, আরকানসাসে একটি নার্সিংহোম বিল্ডিং ধসে ২০ জন মানুষ চাপা পড়েন, যার মধ্যে ২ জন প্রাণ হারিয়েছেন। আরও একটি মর্মান্তিক দৃশ্য দেখা যায় মেফিল্ড শহরের এক ধ্বংসস্তূপের মধ্যে। ধ্বংসস্তূপে পড়ে থাকতে দেখা যায় একটি জন্মদিনের কার্ড। তাতে লেখা আছে, আমরা খুশি যে ঈশ্বর আমাদেরকে তাঁর সুন্দর পৃথিবীতে স্থান দিয়েছেন।

টাটকা খবর বাংলায় পড়তে লগইন করুন www.mysepik.com-এ। পড়ুন, আপডেটেড খবর। প্রতিমুহূর্তে খবরের আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজটি লাইক করুন। https://www.facebook.com/mysepik

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *