১ ডিসেম্বর থেকে গোয়ায় শুরু হচ্ছে দেশের মহিলা ফুটবল দলের ট্রেনিং ক্যাম্প

Mysepik Webdesk: ভারতীয় মহিলা ফুটবল দল আগামী ১ ডিসেম্বর থেকে গোয়ায় জাতীয় শিবির শুরু করতে চলেছে। করোনার কারণে লকডাউন আরোপ করার পর থেকে এটি দলের প্রথম শিবির হবে। শিবিরের জন্য প্রধান কোচ মায়মল রকি ৩০ জন ফুটবলারকে ডেকেছেন। শিবিরটি এএফসি মহিলা এশিয়ান কাপ ২০২২-এর প্রস্তুতির প্রতি মনোনিবেশ করবে। দলের ট্রেনিং শুরুর আগে একটি স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিওর (এসওপি) প্রস্তুত করা হয়েছে। কোভিড-১৯ প্রোটোকল এবং নির্দেশিকাগুলি মাথায় রেখে প্রশিক্ষণ শুরু করা হবে।

আরও পড়ুন: জন্মদিনে মোহন জয়ী হতে ব্যর্থ কিবু ভিকুনা

জাতীয় দলের ডিরেক্টর অভিষেক যাদব জানিয়েছেন, দলের প্রত্যেকে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব মাঠে ফিরতে চায়। গত কয়েক মাস আমাদের জন্য খুব চ্যালেঞ্জিং ছিল। এমন পরিস্থিতিতে ভারতীয়রা ফুটবলকে এগিয়ে নেওয়ার দিকে অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে এগিয়ে চলেছে। তিনি বলেন যে, “আমাদের লক্ষ্য থাকবে এশিয়ান কাপের দিকে। টুর্নামেন্টটি ভারতে অনুষ্ঠিত হবে। এ জাতীয় পরিস্থিতিতে আমাদের পুরোপুরি প্রস্তুত থাকতে হবে।” এছাড়াও তিনি জোর দিয়ে বলেন যে, “দলের নিরাপত্তা আমাদের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। এ ব্যাপারে আমরা কোনও প্রকার খামতি রাখব না।”

নিম্নলিখিত প্রোটোকলগুলি অনুসরণ করতে হবে

১। নিজের শহর ছেড়ে যাওয়ার আগে প্লেয়ারকে অবশ্যই আইসিএমআর-অনুমোদিত অনুমোদিত ল্যাব থেকে করোনা টেস্ট করা হবে। রিপোর্ট নেগেটিভ হলেই তিনি সাবধানতার সঙ্গে গোয়ার উদ্দেশে রওনা হতে পারবেন।

২। প্রত্যেককে গোয়ায় পৌঁছনোর পরে দ্রুত অ্যান্টিজেন পরীক্ষা করতে হবে। রিপোর্ট নেগেটিভ হলেই খেলোয়াড়রা তাঁদের কক্ষে যেতে পারবেন।

৩। ফুটবলারদের এখানে ৭ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। এই সময়ে খেলোয়াড়দের স্বাস্থ্য পর্যবেক্ষণ করা হবে।

৪। অষ্টম দিনে র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টের রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পরেই খেলোয়াড়রা যোগ দিতে পারবেন ট্রেনিংয়ে।

তাছাড়াও এই সময়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এবং স্থানীয় কর্তৃপক্ষের জারি করা নির্দেশিকাও অনুসরণ করতে হবে ফুটবলারদের।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *