ধেয়ে আসছে যশ, সোমবার থেকেই রাজ্য আবহাওয়া পরিবর্তন হবে

Mysepik Webdesk: সুপার সাইক্লোনের তকমা না পেলেও যশের ক্ষমতা কোনও অংশে কম নয়। যশের প্রভাবে তীব্র বেগে যে ঝড় বইবে, তাতে অনেক কিছু ওলোট-পালট হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে, এমনটাই জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। আমফানের থেকে শিক্ষা নিয়ে আর এই ঝড়কে হালকাভাবে নিতে রাজি নয় প্রশাসন। মানুষের জীবন জীবিকা বাঁচাতে সর্বশক্তি প্রয়োগ করবে রাজ্য সরকার, টুইট করে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন: রাজ্যের প্রথম গ্রন্থমেলাও হয় এই মুর্শিদাবাদ জেলায়

আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার থেকেই রাজ্যে আবহাওয়ার পরিবর্তন লক্ষ্য করা যাবে। ওড়িশা ও পশ্চিমবঙ্গ উপকূলে ৪০-৫০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে। নিম্নচাপটি যত স্থলভাগের দিকে এগিয়ে আসবে, তত বাড়বে হাওয়া ও বৃষ্টিপাতের দাপট। আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস অনুযায়ী, আগামী ২৫ তারিখ থেকে শুরু হবে বৃষ্টি। ৭০ কিলোমিটার গতিবেগে বইতে পারে হাওয়া। ২৬ তারিখ সেই বৃষ্টি আরও বাড়বে। বাড়বে হওয়ার গতিবেগও।

আরও পড়ুন: প্রতিহিংসাপরায়ণতা কি সুচতুর চাল!

ইতিমধ্যেই যশের মোকাবিলায় একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছে রাজ্য সরকার। ইতিমধ্যেই দক্ষিণ ২৪ পরগনার কাকদ্বীপ, সাগর, বাসন্তী, গোসাবা এবং ডায়মন্ড হারবারে জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী (এনডিআরএফ) পাঠানো হয়েছে। এছাড়াও নামখানা, মথুরাপুর, পাথরপ্রতিমায় পাঠানো হয়েছে বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী। উত্তর ২৪ পরগনার হিঙ্গলগঞ্জ ও হাসনাবাদে এবং ব্যারাকপুরে এসডিআরএফ টিম মোতায়েন রাখা হয়েছে। ২০টি স্যাটেলাইট ফোন এবং ২৫টি ড্রোনের মাধ্যমে চালানো হবে নজরদারি। বেশি পরিমান ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে এমন এলাকায় ইতিমধ্যেই পৌঁছে দেওয়া হয়েছে ত্রিপল, সাবান, চাল, ডাল, বেবিফুড।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *