‘ঘরের বউকে কয়লা চোর বলছে’, সাহাগঞ্জের সভায় উত্তেজিত মমতা

Mamata Banerjee

Mysepik Webdesk: হুগলির সাহাগঞ্জের সভার শুরু থেকেই আক্রমণ ভঙ্গিতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন সরাসরি তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে আক্রমণ করেন। তিনি চাঁচাছোলা ভাষায় বিজেপি নেতৃত্বকে আক্রমণ করে বলেন, বিজেপির দলে মহিলা সুরক্ষিত? বাংলায় মা বোনেরা সুরক্ষিত। তাই হিংসা করে চলে গিয়েছেন। আমি রাজনীতি করি, অনেক মার খেয়েছি। আমাকে গায়ের জোর দেখাচ্ছে। একবার ভেবে দেখুন কোথায় আঘাত করছে। আমার উপর বিজেপির খুব রাগ। কিন্তু, মা বোনের অসস্মান করতে পারেন? আমার বাড়িতে ঢুকে একটা বাচ্চা মেয়ে, ঘরের বউ। তাকে বলছে কয়লা চোর। আর কয়লা চোরদের নিয়ে নিজে করে বেরোচ্ছেন। আপনারই তোলাবাজ। আপনাদের সারা গায়ে ময়লা লেগে আছে।”

আরও পড়ুন: বাম ব্রিগেডে বড় চমক, হাজির থাকবেন তেজস্বী যাদব

এরপরেই নোটবন্দির প্রসঙ্গ তুলে তিনি বলেন, “তৃণমূল তোলাবাজ হলে আপনারা হলেন দাঙ্গাবাজ, ধান্দাবাজ। গরিবরা পাঁচ টাকা খেলে হয় কাটমানি। আর আপনারা যখন কোটি টাকা খান তার বেলা।” তিনি বলেন, “সিবিআই দিয়ে কজনকে গ্রেফতার করবে, জেল ফুটো হয়ে বেরিয়ে আসবে। ধামসা-মাদল থেকে বেরিয়ে আসবে। তোমরা ক’জনকে গ্রেফতার করবে কর। তৃণমূলের সব কর্মীকে গ্রেফতার করতে হবে।” এরপরেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নরেন্দ্র মোদির রেল প্রকল্পের উদ্বোধন প্রসঙ্গ নিয়ে বলেন, “এই সব প্রকল্প তো আমি রেলমন্ত্রী থাকাকালীনই করে দিয়ে গিয়েছি। ওরা এসে এখন ফিতে কাটছে। দেশের প্রধানমন্ত্রী হয়ে এত মিথ্যে কথা বলেন? আমি প্রধানমন্ত্রীকে কিছু বলতে চাই না। কারণ আমি ওই চেয়ারটা সম্মান করি। তিনি আজ আছেন, কাল চলে যাবেন।”

আরও পড়ুন: তৃণমূলে যোগ দিলেন অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ

এরপরেই তিনি নাম না করে সরাসরি বিজেপি নেতাদের উদ্দেশ্যে কটাক্ষ করে বলেন, “এক নেতা হচ্ছে হোঁদল কুতকুত। আরেকজন নেতা হচ্ছেন কিম্ভূত কিমাকার।” প্রসঙ্গত, এদিন তৃণমূলের সভায় তৃণমূলে যোগদান করেন টলিউডের অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ। সেই তালিকায় নাম লেখালেন অভিনেত্রী জুন মালিয়া, অভিনেতা কাঞ্চন মল্লিক, পরিচালক রাজ চক্রবর্তীও। সেই প্রসঙ্গ তুলে তিনি বলেন, “খেলা হবে। এবারও খেলা হবে। আমি থাকব গোলরক্ষক। একটাও গোল করতে পারবেন না।”

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *