কোভিড টেস্ট করতে গিয়ে রিপোর্ট পজিটিভ আসায় ডাক্তারদের মারধর করল যুবক

Mysepik Webdesk: করোনা আবহে ত্রস্ত মানুষ। শরীরে সামান্য জ্বর, সর্দি-কাশি কিংবা শ্বাসকষ্টের মতো সমস্যা দেখা দিলেই অনেকে ঝুঁকি না নিয়ে সত্তর কোভিড টেস্ট করিয়ে নিশ্চিত হতে চাইছেন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন কিনা। সেরকমই দিল্লির এক যুবক শানু একটি সরকারী হাসপাতালে করোনা টেস্ট করাতে গিয়েছিলেন। কিন্তু সেই টেস্টের রিপোর্ট পজিটিভ দেখেই তিনি রাগের মাথায় হাসপাতাল কর্মীদের মারধর শুরু করে দেন।

আরও পড়ুন: ৯৭ বছরে ঝাড়খণ্ডের ‘বাবুপাড়া’ রেল কলোনি ভোজুডির দুর্গাপুজো

চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে দিল্লীর শাহদারি জেলার জগতপুরী এলাকায়। জানা গিয়েছে শানু প্রথমে সরকারি হাসপাতালে টেস্ট করার পাশাপাশি অন্য আরেকটি বেসরকারি হাসপাতালেও টেস্ট করিয়েছিলেন। তাঁর দাবি, বেসরকারি হাসপাতালে রিপোর্ট নেগেটিভ এলেও কেন সরকারি হাসপাতালে সেই রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। সেই কারণে তিনি সরকারি হাসপাতালের রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পরেই বাইরে থেকে ১০-১২ জন বন্ধুকে নিয়ে এসে সেখানে ভাঙচুর চালায়।

আরও পড়ুন: মর্মান্তিক! হায়দরাবাদে প্রবল বৃষ্টিতে দেওয়াল ভেঙে চাপা পড়ে মৃত ৯

পরে পুলিশ এলে হাসপাতালের সিসিটিভি ফুটেজ দেখে ওই যুবককে সনাক্ত করার চেষ্টা করে। ওই হাসপাতালের চিকিৎসক ডাঃ রীনা শেহগাল অভিযোগ করেন, শানু নামে এক যুবক নিজে থেকেই হাসপাতালে করোনা টেস্ট করাতে আসে। অত্যন্ত ব্যস্ততার মধ্যেই সে নিজের টেস্ট করায়। ওই ব্যক্তির রিপোর্ট পজেটিভ আসায়, তাকে খবর দেওয়া হয়। খবর পেয়েই সে ১০-১২ জন লোক নিয়ে এসে হাসপাতালের কর্মীদের গালিগালাজ ও মারধর করতে শুরু করে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *