দেশের চিকিৎসা ব্যবস্থা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হলে কোনও ‘ব্যবস্থা’ নয়

Mysepik Webdesk: দেশজুড়ে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়েছে। এই পরিস্থিতিতে দেশজুড়ে দেখা দিয়েছে অক্সিজেনের অভাব। হাসপাতালগুলিতেও বেডের অভাবে একাধিক জায়গায় রোগী ফিরিয়ে দেওয়ার ঘটনা ঘটছে। এই মর্মান্তিক অবস্থায় বহু মানুষ সোশ্যাল মিডিয়ায় রাজ্য সরকার কিংবা কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে সমালোচনামূলক মন্তব্য করে চলেছেন। বেশ কিছু ক্ষেত্রেই যাঁরা সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ধরণের পোস্ট করছেন তাদের বিরুদ্ধে সরকারের ব্যবস্থা নেওয়ার ঘটনাও ঘটেছে।

আরও পড়ুন: প্রয়াত বিশিষ্ট সাংবাদিক রোহিত সরদনা

এদিন করোনার চিকিৎসা সংকট নিয়ে একটি মামলার শুনানি চলাকালীন সুপ্রিম কোর্ট জানায়, অক্সিজেন বা বেড না পেয়ে কোনও নাগরিক যদি সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হন, তাহলে তার বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ করতে পারবে না কোনও রাজ্য সরকার। এই ধরণের কোনও ঘটনা ঘটলে তা আদালতের অবমাননা করা হয়েছে বলে গণ্য করা হবে। এদিন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় জানান, “একজন নাগরিক বা বিচারপতি হিসেবে এটা আমার কাছে গভীর চিন্তার বিষয়। কোনও নাগরিক যদি রাজ্যের বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়ায় অভিযোগ জানান, কোনওভাবেই যেন সেই তথ্য দমানোর চেষ্টা না করা হয়। আমাদের উচিত সবার কথা শোনা। কেউ অক্সিজেন বা বেড না পেয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় অভিযোগ জানালে যদি তাঁকে হেনস্থার শিকার হতে হয়, তাহলে আমরা তাকে আদালতের অবমাননা হিসেবেই ধরে নেব। মানুষ এখন গভীর সংকটের মধ্যে রয়েছে।

আরও পড়ুন: যাত্রীবাহী বিমান পরিষেবার ক্ষেত্রে বড়োসড়ো সিদ্ধান্ত পরিবহণ মন্ত্রকের

তিনি আরও বলেন, “বর্তমানে দেশের পরিস্থিতি অত্যন্ত খারাপ। সাধারণ মানুষের কথা ছেড়েই দিলাম, চিকিৎসক, স্বাস্থকর্মীরাও অসুস্থ হয়ে পড়লেও সঠিক চিকিৎসা পাচ্ছেন না। এই পরিস্থিতিতে মানুষ সোশ্যাল মিডিয়ায় করোও বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ করলে তা মিথ্যে বলে ধরে নেওয়ার কোনও কারণ নেই।”

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *