বাংলাদেশের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে একই পরিবারের তিনজন খুন

Mysepik Webdesk: একই পরিবারের তিনজন খুন হয়েছেন কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার কুতুপালং রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরে। সন্দেহ করা হচ্ছে যে, পারিবারিক বিবাদের জেরেই এই খুন। খুনটি গত ২৩ এপ্রিল সন্ধ্যা ৬টা নাগাদ ঘটে। নিহতদের নাম নুরুল ইসলাম (৩২) তাঁর স্ত্রী মরিয়ম বেগম (২৬) এবং নুরুলের শ্যালিকা হালিমা খাতুন (২২)।

আরও পড়ুন: ভারতে ভয়ানক করোনা পরিস্থিতির সময়ে সংহতির বার্তা দিলেন ইমরান খান

প্রতিবেশীরা এবং ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য হেলাল উদ্দিন মিডিয়াতে এই ঘটনার সাক্ষ্য দিয়ে জানিয়েছেন, কুতুপালংয়ের রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ডি-৭ ব্লকে খুনের ঘটনাটি ঘটে। প্রতিবেশীরা জানায় যে, বেশ কিছুদিন ধরেই দাম্পত্য কলহ চলছিল। এই কলহের ফলে স্থানীয়ভাবে কয়েকবার বৈঠক ও হয়েছিল। কিন্তু যারা প্রধান, তারা সময়মতো সালিশ না করায় এই দুর্ঘটনা ঘটেছে বলেই সবার ধারণা।
সংসারে তারা ছাড়াও আরও তিন শিশু বর্তমান।

আরও পড়ুন: লিবিয়ায় নৌকা ডুবে শতাধিক শরণার্থীর মৃতের আশঙ্কা

উখিয়া থানার ওসি মহম্মদ মঞ্জুর মোর্শেদ জানিয়েছেন, পুলিশ তিনটি মরদেহ উদ্ধার করেছে। প্রাথমিকভাবে পারিবারিক কলহকে কারণ বলে মনে করা হচ্ছে। আশা, তদন্তের পর বাকিটা জানা যাবে। আপাতত ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এর পূর্বে দমদমিয়া ন্যাচার পার্কের কাছে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের গুলিতে এক অটোরিকশা চালক নিহত হন, আহত হন এক রোহিঙ্গা যুবক। ঘটনাটি ঘটে গত বৃহস্পতিবার।

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *