তিনটি কবিতা

শাশ্বতী ভট্টাচার্য

অসম্ভবের পথে

এই-যে আমরা হারিয়ে ফেলেছি স্বপ্ন,
এই-যে আমরা ভুলে গেছি মেঠো শৈশব
এই-যে আমরা আকাশ নামিয়ে আনছি,
রোজ কবিতার উৎসব।

এখন কেবল চাঁদের পাহাড়ে উঠছি
এখন সকালে রোদ মাখছি না গায়
এখন সবাই শাসন করছি রাষ্ট্র
ঈশ্বরও নিরুপায়।

এরপর শুধু বাকি থেকে যায় গল্প
এরপর শুধু ভয় আর সংশয়ে
মরে বেঁচে আছে কঙ্কালসার লজ্জা
ঘৃণা আর অবক্ষয়।

চোখ খুলছি না, স্বপ্নরা ভয় পাবে
আমরা এখন চলেছি অসম্ভবে।

আরও পড়ুন: বর্ষা সিরিজ

পথ

কবিতার ভেতর গাঢ় সবুজ পথ, আমি হাঁটতে থাকি ধীরে। জঙ্গলের সে পথ আমার ভারি পছন্দের। সবুজ গভীর হলে ছায়াছায়া আলো-আঁধারিতে আমি গোলকধাঁধার গন্ধ পাই। বেরোনোর পথ খুঁজতে খুঁজতে আমি হারিয়ে যাই আরও। জঙ্গল বিপ্লবের মতো হলে অন্ধকার তাঁবু পাতে, তখন হারিয়ে যেতে ভালো লাগে বেশ। অরণ্যবিপ্লব, যেখানে গাছেরা কেউ একরকমের হয় না বরং বড়, ছোট, বেঁটে, লম্বা, মোটা, সরু সব রকমের গাছ মিলেমিশে বাড়িয়ে তোলে ছায়া, বাড়িয়ে তোলে আলো।

আমি যতদিন সমুদ্র ভালোবেসেছি, ততদিন একা হতে পারিনি। তাই একটা লেখাও কবিতা হয়ে ওঠেনি। যেদিন পাহাড়ে উঠতে শিখেছি, পথের বাঁকে বাঁকে আমার কবিতারা সবুজ হয়ে উঠেছে, কোথাও বা কালো। আজকাল, কালো আমার ভালো লাগে, ঠিক গালের বাঁ-দিকে ঠোঁটের একটু নিচে জমে থাকে অন্ধকার একটা তিলের মতো। সমর্পিত হাসিটির পর সেই তিলের ভেতর দিয়ে কবিতায় ফিরে যাওয়া যায়, চারদিকে জঙ্গল, ছায়াছায়া আলো-আঁধারিতে পথ আপনিই ঘর হয়ে ওঠে।

আরও পড়ুন: ত্রাসের‌ ‌কবিতা‌ ‌

সহজ কথা

সহজ করে বলতে পারি,
অনেক আজব তত্ত্বকথা,
তাই বলে কি সহজ হবে
বুঝতে পারার স্বচ্ছলতা?

সহজ পথে চলতে পারি,
ভাবতে পারি চাইছ যত,
তাই বলে কি পথের ভেতর
থমকে যাব রাতের মতো?

সহজ মানে একটু কঠিন,
নতুন ভাবে ভাবতে শেখা,
নিজের ভেতর নতুন করে
নিজের ছায়ার গল্প লেখা।

সহজ আমি, সহজ তুমি
কঠিন শুধু বন্ধু হওয়া,
সময় যখন হাত তুলে নেয়
কঠিন তখন মনকে ছোঁয়া।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *