গত ১০ বছরের রিপোর্ট কার্ড প্রকাশ করল তৃণমূল

TMC

Mysepik Webdesk: হাতে আর মাত্র কয়েক মাস তারপরই বিধানসভা ভোট। ইতিমধ্যে রাজ্যজুড়ে নির্বাচনের তোড়জোড় শুরু করেছে রাজনৈতিক দলগুলি। এবারে তৃণমূলকে কড়া টক্কর দিতে রাজ্যে কোমর বেঁধেছে বিজেপি। এদিকে বিজেপি’‌র সর্বভারতীয় সভাপতির সভার দিনই গত ১০ বছরের উন্নয়নের খতিয়ান পেশ করল তৃণমূল। এদিন দলের সদর দফতরে আনুষ্ঠানিকভাবে সূচনা হল ‘‌বঙ্গধ্বনি যাত্রা’‌ কর্মসূচির। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ফিরহাদ হাকিম, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, পার্থ চট্টোপাধ্যায়, শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়ের মতো দলের একাধিক হেভিওয়েট মন্ত্রীরা। রাজ্যে ২৯৪টি বিধানসভা এলাকায় শুক্রবার থেকেই এই রিপোর্ট কার্ড নিয়ে বাড়ি বাড়ি পৌঁছে যাবেন তৃণমূল কর্মীরা।

আরও পড়ুন: দু’দিনের সফরে আজ বাংলায় আসছেন বিজেপি–র সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা

এই রিপোর্ট কার্ডে একাধিক উন্নয়নের খতিয়ান উল্লেখ করা হয়েছে। রাজ্যবাসীর গড় আয় গত এক দশকে দ্বিগুণ বেড়েছে। বেড়েছে জিডিপি। বাজেট বেড়েছে শিক্ষা, ক্রীড়া, শিল্প ও সংস্কৃতি ক্ষেত্রে। কন্যাশ্রী, সবুজসাথী, মিড ডে মিল, পোশাক বিলির উদ্যোগে উপকৃত হয়েছেন শিক্ষার্থীরা। গত ১০ বছরে রাজ্যে ৩০টি বিশ্ববিদ্যালয় ও ৫০টি কলেজ–সহ একাধিক নতুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান তৈরি হয়েছে। স্বাস্থ্যসাথী কার্ড, খাদ্যসাথী, আবাস যোজনা, রূপশ্রী প্রকল্প, কৃষকবন্ধু প্রকল্প, নির্মল বাংলা, বিদ্যুত ও পানীয় জল, রাস্তাঘাট, ১০০ দিনের কাজ, কারখানা বেড়েছে ১৫ শতাংশ, সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্প প্রভৃতি।

আরও পড়ুন: কৃষকের ভারত বন্‌ধ: বাম নেতা-কর্মীরা বাংলা-ওড়িশায় ট্রেন থামিয়েছেন, সকাল ১১টা থেকে ৩টে পর্যন্ত চলবে চাক্কা জ্যাম

এরই মধ্যে আবার ‘‌দুয়ারে সরকার’‌ কর্মসূচিও শুরু করেছে রাজ্য সরকার। রাজ্যবাসীর কাছে একাধিক প্রকল্পের সুবিধা পৌঁছে দিতে প্রতিটি পঞ্চায়েতে ক্যাম্প করা হচ্ছে। কোথাও কোথাও তো আবার জনপ্রতিনিধিরা ঘরে ঘরে পৌঁছে যাচ্ছেন।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *