বাজার করতে বেরিয়ে গুলিবিদ্ধ তৃণমূল নেতা, চাঞ্চল্য এলাকায়

Mysepik Webdesk: ভোট পরবর্তী হিংসা এখনও অব্যহত বাংলার আনাচে কানাচে। নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়ে তৃতীয়বার বাংলার মসনদে বসার পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সাফ জানিয়েছিলেন, বাংলায় কোনও হিংসার ঘটনা ঘটালে কাউকেই রেয়াত করা হবে না। কিন্তু বাস্তবে দেখা গেল ঠিক তার উল্টো ছবি। এবার বাজার করতে বেরিয়ে গুলিবিদ্ধ হলেন বাঁশবেড়িয়া পুরসভার প্রাক্তন উপ পুরপ্রধান তৃণমূল নেতা আদিত্য নিয়োগী (Aditya Niyogi)। তাঁকে গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে বাঁশবেড়িয়া বেলতলা বাজারে।

আরও পড়ুন: রাজ্যে বিরোধী দলনেতা হিসেবে শপথ নিলেন শুভেন্দু অধিকারী

জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার বাজার করতে বেরিয়ে পিঠে গুলিবিদ্ধ হন আদিত্য নিয়োগী। সেই অবস্থায় আদিত্যবাবুকে প্রথমে চুঁচুড়া হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলেও সেখানে চিকিৎসকরা তাঁর পিঠ থেকে গুলি বের করতে সক্ষম হননি। তারপরেই তড়িঘড়ি করে তাঁকে স্থানীয় একটি নার্সিংহোমে নিয়ে আসা হয়। সেখানে চিকিৎসকরা তাঁকে কলকাতায় নিয়ে আসার পরামর্শ দেন। বর্তমানে তিনি কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তাঁর শিরদাঁড়ায় গুলি আটকে রয়েছে। এই মুহূর্তে তাঁর শারীরিক অবস্থা সঙ্কটজনক।

আরও পড়ুন: তৃণমূল সরকারের কোন কোন দপ্তরে কারা পেলেন দায়িত্ব, একনজরে দেখে নিন

এদিকে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তাল হয়ে ওঠে বাঁশবেড়িয়া চত্বর। তৃণমূলকর্মীরা এই ঘটনার পেছনে বিজেপির হাত রয়েছে বলে দাবি করেছেন। অন্যদিকে বিজেপি এই ঘটনাকে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব বলে দায় এড়িয়েছে। বাঁশবেড়িয়ার তৃণমূল নেতা রাজা চ্যাটার্জি জানান, এই ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ। এলাকার সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করছে তদন্তকারী দল। খুব শীঘ্রই অপরাধী ধরা পড়বে বলে আশা প্রকাশ করেছেন তদন্তকারী আধিকারিকরা।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *