তৃণমূলে ‘সেকেন্ড ম্যান’- এর কোনও অস্তিত্ব নেই, জানালেন দলের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

Mysepik Webdesk: এতদিন পর্যন্ত ছিলেন যুব তৃণমূল সভাপতি। পদোন্নতি হওয়ার পর এবার দলের সাধারণ সম্পাদক হলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। নতুন দায়িত্ব পাওয়ার পর সোমবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন তিনি বলেন, “২০১৪ সাল থেকে শুরু করে সাত বছর ধরে যুব তৃণমূলের দায়িত্ব সামলেছি। এবার নতুন করে পথ চলা শুরু করলাম। তার আগে গুরুজনদের আশীর্বাদ নিয়েছি। আর একটা কথা, তৃণমূলে ‘সেকেন্ড ম্যান’ বলে কিছু নেই। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণাতেই আমাদের পথ চলা।”

আরও পড়ুন: মহুয়ার স্বজনপোষনের অভিযোগ ওড়ালেন রাজ্যপাল, ফের রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা প্রসঙ্গে টুইট

নতুন দায়িত্ব পেয়ে এদিনও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বিরোধী দলের (বিজেপি) উদ্দেশ্যে একসঙ্গে কাজ করার বার্তা দিলেন। নাম না করে শুভেন্দু অধিকারীর উদ্দেশ্যে বলেন, “আশা করব বিরোধী দলনেতা এবার থেকে কোনও কুৎসা বা অপপ্রচার না করে আমাদের সঙ্গে গঠণমূলক আলোচনায় অংশগ্রহণ করবেন। পাশাপাশি তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রশংসা করতেও ভুললেন না। তিনি বলেন, “যেভাবে আমরা মানুষের সমর্থন পেয়েছি তাতে আপ্লুত। সারা দেশের মানুষ ভাবতে শুরু করেছে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কোনও বিকল্প নেই।”

আরও পড়ুন: এবার নিউ টাউনে ভ্যাকসিন অন হুইলস

আগামী দিনের পরিকল্পনা সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করায় তিনি বলেন, “আমি মাত্র ৪৮ ঘণ্টা আগে নতুন দায়িত্ব গ্রহণ করেছি। তৃণমূলের পরিকল্পনা আমি আগামী ২-৩ সপ্তাহ অথবা এক মাসের মধ্যে জানাব। ঢেলে সাজানো হবে দলের কর্মসূচি। আগে যা ছিল, সেই তৃণমূলের থেকে অনেকটা নতুন রূপে আসবে দল। আমরা যদি কোনও রাজ্যে ভোটের ময়দানে লড়াই করতে যাই, তবে সেটা শুধুমাত্র নির্বাচনী লড়াইয়ের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবে না। সেই রাজ্যকে জয় করতে ঝাঁপাবে তৃণমূল। কারণ সমস্ত ভারতকে পথ দেখিয়েছে বাংলা।” তিনি জানান, “আমরা এই কয়েকদিনের মধ্যেই এক লাখের বেশি ই-মেল পেয়েছি। সাধারণ মানুষের মতামত জানাটা জরুরি। সবকটি মেল এখনও পড়ে দেখতে পারিনি আমরা। সব দেখে মাস খানেকের মধ্যেই আমরা দলের নতুন পরিকল্পনা নিয়ে আসব। কী লক্ষ্যে এগোব এবং দায়িত্ব কাদের উপর বর্তাবে, সেটাও খুব দ্রুত সাংবাদিক বৈঠক করে জানাব।”

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *