টপস স্কিমের আওতায় এসে স্প্রিন্টার দ্যুতি চাঁদ কৃতজ্ঞতা জানালেন ক্রীড়ামন্ত্রীকে

Mysepik Webdesk: বিশ্বজুড়ে করোনাকাল চলছে। এই পরিস্থিতিতে ২০২১-এও অলিম্পিক হবে কিনা, সে-ব্যাপারে দেখা দিয়েছে সন্দেহ। তবে দেশের মহিলা স্প্রিন্টার অ্যাথলেট দ্যুতি চাঁদ অলিম্পিকের আশা ছাড়েননি। তিনি তাঁর ট্রেনিং অব্যাহত রেখেছেন। এ-কারণে ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্প্রতি তাঁকে টপস (টার্গেট অলিম্পিক পোডিয়াম স্কিম)-এ অন্তর্ভুক্ত করেছে। এই প্রকল্পের আওতায় দ্যুতিকে ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সবরকম ভাবে সহায়তা করবে। ‘মিশন অলিম্পিকে’র প্রস্তুতিতে যাতে তাঁর কোনও সমস্যায় পড়তে না হয়, তা-ও দেখা হবে।

আরও পড়ুন: লেফন্ড্রের ডাবলে শীর্ষে মুম্বই, টানা দ্বিতীয় হার ইস্টবেঙ্গলের

এমন পরিস্থিতিতে গত ৩ বছর ধরে টপসে যোগ দিতে মরিয়া দ্যুতি বলেন, “ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী কিরেন রিজিজু প্রতিশ্রুতি রেখেছেন।” ইন্ডিয়াটিভি.ইন-এর সঙ্গে এক আলাপচারিতায় টপস স্কিমে অন্তর্ভুক্ত হওয়ার ফলে তিনি যে খুব খুশি, তার জন্য দ্যুতি কৃতিত্ব দিয়েছেন ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেন রিজিজুকে। দ্যুতি বলেছিলেন, “গত বছর ওড়িশায় আমি প্রথমবারের মতো ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী কিরেন রিজিজুকে বলেছিলাম যে, ‘স্যার আমাকে টপসে শামিল করুন।’ এরপর তিনি আমাকে বলেছিলেন— ‘দ্যুতি, চিন্তা করবেন না। খেলায় মনোনিবেশ করুন’।”

আরও পড়ুন: সত্যজিৎ ঘোষ: ফ্ল্যাশব্যাকে আশির দশকের কলকাতা ফুটবল দুনিয়া

Dutee Chand bags 100m gold in World Universiade, creates history

উল্লেখ্য যে, গত তিন বছর ধরে তাঁকে টপস-এ অন্তর্ভুক্ত করার দাবি করে আসছিলেন দ্যুতি চাঁদ। তিনি তৎকালীন ক্রীড়ামন্ত্রী রাজ্যবর্ধন সিং রাঠোরকেও সুপারিশ করেছিলেন। তবে কিছু কারণে এই ভারতীয় প্রফেশনাল স্প্রিন্টার টপসে অন্তর্ভুক্ত হননি। ২৬ নভেম্বর মিশন অলিম্পিক সেলের সভা শেষে দ্যুতিকে এখন ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ডের সাত খেলোয়াড়ের টপস ডেভেলপমেন্ট গ্রুপে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। দ্যুতি বলেছেন, “সভার আগে ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেন রিজিজুর কাছ থেকে আমি ফোন পেয়েছিলাম এবং তিনি আমাকে এতে যোগ দেওয়ার ব্যাপারে বলেছিলেন। যার ফলে আমি খুবই আনন্দিত। তিনি তাঁর প্রতিশ্রুতি রেখেছেন।” এহেন দ্যুতিকে প্রায়শই অর্থনৈতিক সংকটের সঙ্গে লড়াই করতে দেখা গেছে।

Similar Posts:

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *