বিনা প্ররোচনায় ভারতীয় মৎস্যজীবীদের উপর হামলা, খুনের মামলা ১০ পাক নৌসেনার বিরুদ্ধে

Mysepik Webdesk: বিনা প্ররোচনায় ভারতীয় মৎস্যজীবীদের ওপর গুলি চালিয়েছিল পাক নৌসেনা। তাতে মৃত্যু হয়েছে এক ভারতীয় মৎসজীবীর। আহত হয়েছেন আরও দু’জন। এবার সেই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ১০ জন পাক নৌসেনার বিরুদ্ধে খুনের মামলা দায়ের করল ভারত। যদিও পাক নৌসেনার দাবি, পাক-সীমানায় ঢুকে পড়া ‘জলপরি’ নামের ভারতীয় নৌকোটিতে থাকা মৎস্যজীবীদের বার বার সতর্ক করা হলেও তারা পাত্তা দেয়নি। ফলে, বাধ্য হয়েই তাদের গুলি চালাতে হয়।

আরও পড়ুন: আম্বালা পার্কে প্রদর্শিত হবে নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর জীবন কাহিনি

রবিবার গুজরাটের ওখা উপকূলে ভারত-পাক জল সীমান্তে পাক নৌসেনার গুলিতে মৃত্যু হয় এক ভারতীয় মৎস্যজীবীর। পাশাপাশি আহত হন আরও দু’জন তাঁদের মধ্যে একজন হলেন ৩২ বছরের মহারাষ্ট্রবাসী মৎস্যজীবী শ্রীধর রমেশ চামরের। তাঁর শারীরিক অবস্থা বিপদমুক্ত হলেও অন্যজন আশঙ্কাজনক অবস্থায় ওখার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এই ঘটনার জেরেই ১০ পাক নৌসেনার বিরুদ্ধে খুনের মামলা করা হয়েছে। মৎস্যজীবী দিলীপ নাটু সোলাঙ্কি অভিযোগের ভিত্তিতে এই মামলা করা হয়েছে। ঘটনার সময় তিনি ‘জলপরি’তে ছিলেন।

আরও পড়ুন: করোনা আপডেট: গত ২০ মাসের তুলনায় এই প্রথম দেশে সুস্থতার হার সর্বোচ্চ

ভারতীয় নৌসেনা জানিয়েছে, ইতিমধ্যেই পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। আক্রান্ত মৎস্যজীবীদের সঙ্গে কথা বলা হচ্ছে। বিস্তারিত জানার পরে উপযুক্ত পদক্ষেপ করা হবে। বিনা প্ররোচনায় মৎস্যজীবীদের উপর এই হামলাকে ভারত কিছুতেই হালকা হালকা ভাবে নেবে না। যদিও পাকিস্তানের দাবি, ভারতীয় মৎস্যজীবীরা বেআইনি ভাবে পাকিস্তানের জলসীমার ভিতরে ঢুকে পড়েছিল। তাদের বার বার সতর্ক করা হলেও তারা কথা কানে নেয়নি। ফলে, বাধ্য হয়েই তাদের গুলি চালাতে হয়।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *