সরস্বতী পূজায় লাগামহীন বাইক দৌরাত্ম্য হাওড়ায়, আহত অধ্যাপক

Mysepik Webdesk: ভেবেছিলেন স্কুলপড়ুয়া মেয়ের জন্য কিনবেন নতুন মাস্ক। এদিন বিকেলে হাওড়া মন্দিরতলায় ব্রিজের শেষপ্রান্তে গাড়ি রেখে রাস্তার দুই ধার যানবাহন-শূন্য দেখে রাস্তা পেরোতে যান বিদ্যানগর কলেজের অধ্যাপক সমিত চ্যাটার্জি। আচমকা যমদূতের মতো রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকা এক ম্যাটাডোরের পিছন দিক থেকে প্রায় মাটি ফুঁড়ে বিদ্যুৎ গতিতে হাজির হন এক স্কুটার-চালক। হেলমেটহীন চালক তার স্কুটার সহ এসে সটান সমিতবাবুকে মাঝরাস্তায় সজোরে আঘাত করে বসেন। আচমকা এ-হেন আঘাতে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন বছর পঞ্চাশের অর্থনীতির অধ্যাপক।

আরও পড়ুন: মানসিক অবসাদে সরস্বতীপুজোর দিনই আত্মহত্যা করলেন কলেজ ছাত্রী

ঘটনার পরে স্থানীয় লোকজন সমিতবাবুকে প্রাথমিকভাবে শ্রুশ্রূষা করে এবং তিনি পরে শিবতলা পুলিশ স্টেশনে হাজির হন। mysepik.com-কে সমিতবাবু জানান যে, তিনি কোনও রকম প্রতিশোধস্পহা নয় সামাজিক দায়িত্ববোধ থেকে থানায় অভিযোগ জানাচ্ছেন। কারণ সরস্বতী পুজোর দিনে এই ধরনের বেপরোয়া বাইক চালানোর প্রবণতা অত্যন্ত বিপজ্জনক এবং তিনি সকলের স্বার্থে আইনসম্মতভাবে তিনি এর বিহিত করতে আগ্রহী।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *