Latest News

Popular Posts

ইউপি নির্বাচন: আসন ভাগাভাগির আগেই প্রার্থী ঘোষণা করল বিজেপির মিত্র আপনা দল

ইউপি নির্বাচন: আসন ভাগাভাগির আগেই প্রার্থী ঘোষণা করল বিজেপির মিত্র আপনা দল

Mysepik Webdesk: ভারতীয় জনতা পার্টির জোট সহযোগী আপনা দল (এস) রবিবার উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনে রামপুর জেলার সোয়ার বিধানসভা আসন থেকে হায়দার আলি খানকে দলের প্রার্থী হিসাবে ঘোষণা করেছে। বিশেষ বিষয় হল, বিজেপির সঙ্গে আপনা দলের আনুষ্ঠানিক সবেমাত্র চুক্তি হয়েছে। আসন এখনও ভাগাভাগি হয়নি। তবে, তার আগেই প্রার্থী ঘোষণা করল বিজেপির মিত্র আপনা দল। ২০১৭ সালে আপনা দল ১১টি আসন পেয়েছিল, যার মধ্যে তারা ৯টি জিতেছিল।

আরও পড়ুন: এক নেতাজি সেনানী এবং তাঁর পরিবারের করুণ কাহিনি

আপনা দল (এস)-এর জাতীয় মুখপাত্র রাজেশ প্যাটেল রবিবার সোয়ার বিধানসভা কেন্দ্র থেকে দলের প্রার্থী হিসাবে হায়দার আলি খানের নাম ক্যান্ডিডেট হিসাবে জানিয়েছেন। প্যাটেল বলেছন, হায়দার আলি খান কংগ্রেস ছেড়ে এবং অতীতে আপনা দল (এস)-এর নেতৃত্বে প্রভাবিত হয়ে দিল্লিতে দলে যোগ দিয়েছিলেন। কংগ্রেসও হায়দার আলি খানকে সোয়ার থেকে প্রার্থী ঘোষণা করেছিল।

নবাব পরিবারের সদস্য রামপুরের প্রাক্তন সাংসদ বেগম নূর বানোর নাতি হায়দার আলি দ্বিতীয় প্রার্থী, যিনি কংগ্রেস প্রার্থী ঘোষণার পর টিকিট প্রত্যাখ্যান করেছেন। হায়দার আলি খানকে ১৩ জানুয়ারি সোয়ার থেকে কংগ্রেস তার প্রথম তালিকায় মনোনীত করেছিল। একই তালিকায় বেগম নূর বানোর ছেলে কাজিম আলি খানকে রামপুর থেকে কংগ্রেস প্রার্থী ঘোষণা করা হয়।

আরও পড়ুন: ইউপিতে দুই দলের সঙ্গে সর্বভারতীয় মজলিশ-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমিনের জোট

২০১৭ সালে আবদুল্লাহ আজম খান এসপির টিকিটে সোয়ার বিধানসভা কেন্দ্র থেকে বিধানসভা নির্বাচনে জয়ী হয়েছিলেন। রামপুরের এসপি সাংসদ আজম খানের ছেলে আবদুল্লাহ আজম খান প্রায় দুই বছর পর সম্প্রতি সীতাপুর জেল থেকে মুক্তি পেয়ে আবারও এসপি থেকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। ইলাহাবাদ হাইকোর্ট তাঁর নির্বাচনী হলফনামায় অসংগতির কারণে ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে আবদুল্লাহ আজম খানকে বিধায়ক হিসাবে অযোগ্য ঘোষণা করেছিল। রামপুর জেলায় নবাব পরিবার ও আজম খানের মধ্যে রাজনৈতিক প্রতিযোগিতা চলছে।

টাটকা খবর বাংলায় পড়তে লগইন করুন www.mysepik.com-এ। পড়ুন, আপডেটেড খবর। প্রতিমুহূর্তে খবরের আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজটি লাইক করুন।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *