কর্মখালি! ছাত্রীদের জন্য চরিত্রবান সৎ শিক্ষক খুঁজছে তালিবান সরকার

Mysepik Webdesk : আফগানিস্তানে তালিবান শাসনে মেয়েরা পড়াশোনা করতে পারবে ঠিকই কিন্তু ক্লাস করার জন্য পর্দা টাঙিয়ে কিংবা আলাদা ঘরে তাদের পড়াশোনা করতে হবে। আফগানিস্তান মহিলাদের পড়াশোনা চালানোর ক্ষেত্রে এমনটাই শর্ত চাপিয়েছে তালিবান প্রশাসন। এখানেই শেষ নয়, মহিলাদের পড়ানোর জন্য শুধুমাত্র মহিলা শিক্ষকই নিয়োগ করতে হবে। পাশাপাশি, কোনও বিষয়ে মহিলা শিক্ষক পাওয়া না গেলে সেক্ষেত্রে সেই কোর্স পড়ানো বন্ধ রাখতে হবে কিংবা কোনও চরিত্রবান, সৎ বৃদ্ধ শিক্ষকই মহিলাদের পড়াতে পারবেন।

আরও পড়ুন: তালিবান সরকারকে এখনই স্বীকৃতি দিতে নারাজ বাংলাদেশ

মেয়েদের পড়াশোনার ক্ষেত্রে একাধিক শর্ত চাপানো হয়েছে। ঘোষণা করা হয়েছে, নিকাবে মুখ ঢেকে কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে যেতে হবে মেয়েদের। কলেজ চত্বরে যাতে মেয়েরা ছেলেদের সঙ্গে মেলামেশা করতে না পারে তার জন্য ক্লাস শেষ হওয়ার ৫ মিনিট পর শ্রেণীকক্ষ ছাড়তে হবে ছাত্রীদের। অর্থ্যাৎ তালিবান শাসনে ফের একগুচ্ছ মধ্যযুগীয় অনুশাসনের মধ্যে ফিরতে হবে আফগান মহিলাদের, এই ঘোষণা থেকেই তা দিনের আলোর মতো স্পষ্ট হতে চলেছে। প্রসঙ্গত, তালিবান সরকারের নতুন শিক্ষামন্ত্রী শেখ মৌলবি নুরুল্লা মুনি সম্প্রতি বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন যে, পিএইচডি কিংবা মাস্টার ডিগ্রী আজকের দিনে কিছুরই প্রয়োজন নেই, কারণ এইসব ডিগ্রি ছাড়াও মুসলিমরা আজ বিশ্বসেরা।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *