শুরু থেকেই ‘হিংসা’, আগরতলায় রক্ত ঝরল তৃণমূল এজেন্টদের, অভিযুক্ত বিজেপি

Mysepik Webdesk: আগরতলায় ভোট শুরু হয়েছে সকাল সাতটা থেকে। ভোট শুরুর প্রস্তুতিতে ইভিএম পরীক্ষার কাজ চলছিল ৫ নম্বর ওয়ার্ডে। সেই সময় একাধিক জায়গায় তৃণমূল এজেন্টদের ভয় দেখিয়ে বুথ থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। অভিযোগের তীর বিজেপি কর্মীদের দিকে। আগরতলার পুরসভার ৪১ নম্বর ওয়ার্ডের ৪ কবিরাজ তিল্লা, ২ নম্বর ওয়ার্ড অফিস এবং ১ অঙ্গনওয়ারি স্কুলে ভোটারদের বাধা দেওয়ার অভিযোগ। যদিও সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি (BJP)। 

আরও পড়ুন: বৃদ্ধি করা হল কেন্দ্রীয় সরকারের ফ্রি রেশনের মেয়াদ

আগরতলায় পাঁচ নম্বর ওয়ার্ডের আচার্য প্রফুল্ল চন্দ্র রায় স্কুলের তৃণমূলের দু’জন পোলিং এজেন্টকে মারধরের অভিযোগ উঠল। তৃণমূল এজেন্টদের দাবি, মক পোলিংয়ের সময় এজেন্টদের মারধর করা হয়। পুলিশ নীরব দর্শক হয়ে দাঁড়িয়েছিল। তৃণমূল প্রার্থীর দাবি, এক মহিলা এজেন্টের ফোন কেড়ে নেওয়া হয়েছে। 

আরও পড়ুন: আজ বিকাল ৫টায় দিল্লিতে মোদি-মমতা সাক্ষাৎ

ত্রিপুরার নির্বাচন কমিশন সূত্রে খবর, মোট ৬৪৪টি কেন্দ্রের মধ্যে ৩৭০টিকেই অতি স্পর্শকাতর বলে চিহ্নিত করা হয়েছে। বাকি ২৭৪টি ভোটগ্রহণ কেন্দ্রকে স্পর্শকাতর হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে। রাজ্যে মোট বুথের সংখ্যা ৬৪৪। ভোটদাতা ৪ লক্ষ ৯৩ হাজার ৪১। রাজ্য নির্বাচন কমিশন সূত্রে খবর, সকাল ৭টা থেকে বিকেল ৪টে পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলবে আগরতলা পুরসভা, ১৩টি পুর পরিষদ এবং ৬টি নগর পঞ্চায়েতে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *