Latest News

Popular Posts

ঠিক কী কারণে ময়নাগুড়ির রেল দুর্ঘটনা? উঠে আসছে একাধিক কারণ

ঠিক কী কারণে ময়নাগুড়ির রেল দুর্ঘটনা? উঠে আসছে একাধিক কারণ

Mysepik Webdesk: অতিরিক্ত গতি, না যান্ত্রিক ত্রুটি, ঠিক কী কারণে ময়নাগুড়িতে গতকাল ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনার ঘটনা ঘটেছে? ভারতীয় রেলের অন্তর্তদন্তে উঠে আসছে একাধিক কারণ। শুক্রবারই দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন ভারতের রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করার পর তিনি জানান, রেলের ইঞ্জিনে কোনও ত্রুটি থাকলে তা ঠিক কী ধরনের ত্রুটি ছিল বা সেই ত্রুটির পিছনে অন্য কোনও কারণ ছিল কিনা, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। খুব শীঘ্রই তদন্ত শেষ হবে বলেও আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। এদিন তিনি হাসপাতালে আহতদের সঙ্গেও দেখা করেন।

আরও পড়ুন: ট্রেন দুর্ঘটনার পর সবচেয়ে বেশি উদ্বেগ বেড়েছে বিকানেরের গঙ্গাশহরে, কী বলছেন যাত্রীরা?

যদিও প্রাথমিক তদন্তে অনুমান, হুইল-অ্যাক্সেল পরিচালনা করার জন্য ট্রেনে যে ট্রাকশন মোটরস ব্যবহৃত হয়, সেই মোটর খুলে পড়ে গিয়েই দুর্ঘটনা ঘটেছে। তবে, কিছু একটা ঘটতে চলেছে, তা আগে থেকেই আন্দাজ করতে পেরেছিলেন লোকো পাইলট ও তাঁর সহকারী পাইলট। মনে করা হচ্ছে, সেটা বোঝার পরেই তিনি ইমার্জেন্সি ব্রেক কষেন। কিন্তু, সেই সময় ট্রেনের গতি অনেকটাই বেশি থাকায় এবং কোচগুলি পুরোনো মডেলের ICF কোচ হওয়ার কারণে সেই ধাক্কা সামলাতে পারেনি। ফলে, একটি কোচের উপরে অন্য কোচ উঠে পড়ে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে।

আরও পড়ুন: রাজ্যে সামান্য বাড়লো কোভিড গ্রাফ, বাড়লো মৃত্যুও

যদিও প্রথম পর্যায়ে মনে করা হচ্ছিল, ট্রেন লাইনে কোনও ফাটল থাকার কারণেই দুর্ঘটনা ঘটেছে। যাত্রীদের একাংশের দাবি, দুর্ঘটনার সময় ট্রেনটি প্রচন্ড গতিতে চলছিল। এদিন দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করার পর রেলমন্ত্রী বলেন, “আমি নির্দিষ্ট ভাবে বলতে চাই, এই দুর্ঘটনার সঙ্গে রেল লাইনের ত্রুটি বা অতিরিক্ত গতির কোনও সম্পর্ক ছিল না। তবে, যতটুকু বোজা যাচ্ছে, তাতে মনে হচ্ছে ইঞ্জিনের কোনও ত্রুটির কারণেই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। কিন্তু, কীভাবে এই ত্রুটি হল, নির্দিষ্ট যন্ত্রাংশ খুলে পরীক্ষার পরই তা বোঝা সম্ভব হবে।”

টাটকা খবর বাংলায় পড়তে লগইন করুন www.mysepik.com-এ। পড়ুন, আপডেটেড খবর। প্রতিমুহূর্তে খবরের আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজটি লাইক করুন। https://www.facebook.com/mysepik

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *