ঘরোয়া উপায়ে হাঁটুর ব্যথা কমাতে যা করণীয়

Knee Pain

Mysepik Webdesk: বয়সকালে সাধারনত বেশিরভাগ মানুষই এই হাঁটুর সমস্যায় ভোগেন। তবে পুরুষদের তুলনায় মহিলাদেরই এই সমস্যায় বেশি পড়তে দেখা গিয়েছে। কম বয়সী বা শিশুদেরও এই সমস্যায় ভুগতে দেখা যায়। ব্যথার হাত থেকে উপশম পেতে অনেকেই নিয়মিত ঔষধ ব্যবহার করে থাকেন। তবে ঘরোয়া উপায়ে অনেক সময় এই ব্যথা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। এজন্য কিছু নিয়ম অনুসরণ করতে হবে যেমন –

আরও পড়ুন: শরীরে ভিটামিন-ডি কমে গেলে যেসব সমস্যা হয়ে থাকে

১. আইস থেরাপি: একটি প্লাস্টিকের ব্যাগের মধ্যে চার থেকে পাঁচ টুকরো বরফ নিয়ে হাঁটুর ঠিক যেখানে ব্যথা সেখানে চেপে ধরতে হবে। ১০ থেকে ১৫ মিনিট চেপে রাখতে হবে। এই পদ্ধতিতে সারা দিনে তিনবার আইস থেরাপি ব্যবহার করতে হবে। মনে রাখবেন এটা কিন্তু এক ধরনের থেরাপি এর ফলে ব্যথা অনেকটাই কম হয়।

২. মেসেজ থেরাপি: একটি বাটিতে তিন থেকে চার চামচ অলিভ অয়েল গরম করে ব্যথা জায়গায় ১০ থেকে ১৫ মিনিট হালকা করে মালিশ করুন। অবশ্যই এটা মনে রাখতে হবে মালিশ করার সময় হাত ব্যথার উপর থেকে নিচের দিকে নামবে। এই ভাবে দিনে দুই থেকে তিনবার মালিশ করতে হবে। এতে অনেকটাই আরাম পাওয়া যাবে।

আরও পড়ুন: শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে গেলে যে সমস্ত লক্ষণগুলো দেখা যায়

৩. হিট থেরাপি: গরম জলের মধ্যে টাওয়াল চুবিয়ে তাকে ভালো করে চিপে নিয়ে গরম অবস্থায় হাঁটুর ওপর চেপে ধরতে হবে। এইভাবে ১৫ থেকে ২০ মিনিট করতে পারলে ভালো ফলাফল পাওয়া যায়। তাছাড়া হট ওয়াটার ব্যাগ ব্যবহার করতে পারেন। গরম সেঁক দিনে দুই থেকে তিনবার নিতে হবে তাতে ব্যথা অনেকটাই কম হবে।

৪. আদা: আদা ব্যথা কমানোর জন্য অত্যন্ত উপকারী। দিনে তিন থেকে চারবার আদা চা খেতে পারেন এতে অনেকটাই উপকার পাওয়া যায়।

৫. দুধ: এক চামচ বাদাম, আখরোটের গুরু এবং কিছুটা হলুদ দুধের সঙ্গে ভালো করে মিশিস গরম করতে হবে যতক্ষন না অর্ধেক হয়। দিনে একবার করে টানা একমাস এই দুধ খেতে হবে। বেশ কার্যকরী এটি হাটুর ব্যাথা কমানোর জন্য।

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *