বিজেপি পর্যবেক্ষকদের হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট ফাঁস, সুপ্রিম কোর্টে যাবেন মমতা

Mysepik Webdesk: করোনার বাড়বাড়ন্তের ফলে আর কোনও রোড-শো, জনসভা করা যাবে না পশ্চিমবঙ্গে, এমনটাই নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। শুধুমাত্র ভার্চুয়াল সভা করা যাবে। কমিশনের নির্দেশ মেনেই এদিন বীরভূমের তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল, জেলার ১১ প্রার্থীকে নিয়ে ভার্চুয়াল সভা করেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই ভার্চুয়াল সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি কেন্দ্রীয় সরকারের পাশাপাশি নির্বাচন কমিশনেরও সমালোচনা করেন।

আরও পড়ুন: ভারতে করোনা পরিস্থিতির জন্য কেন্দ্রকে দায়ী করলেন প্রশান্ত কিশোর

এদিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “আমরা কমিশনের কাছ থেকে নয় বিচার পাচ্ছি না। বিজেপির কথা কমিশন ওঠাবসা করছে। বিজেপির কথাতেই ওরা চলেছে, ভোট করাচ্ছে। করোনা পরিস্থিতির কথা ভেবে আমি আগেই বলেছিলাম বাকি দুটো দফা একসঙ্গে করে দিতে। কিন্তু বিজেপি-র কথা শুনে কমিশন ৮ দফায় নির্বাচন করছে।” তিনি আরও বলেন, “বাইরে থেকে লক্ষ লক্ষ লোক বাংলায় নিয়ে আসছে। এখন বাংলায় ২ লক্ষ কেন্দ্রীয় বাহিনী রয়েছে। ওরা এক জেলা থেকে আরেক জেলায় ঘুরে বেড়াচ্ছে আর করোনা ছড়াচ্ছে। ওদের করোও কোভিড টেস্ট করা হয়নি।”

আরও পড়ুন: রাজ্যে কী অক্সিজেনের ঘাটতি হতে পারে? জানালেন মমতা

এর পরেই মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “শুধুমাত্র বাংলা দখল করার জন্য ওরা কমিশনকে বলে এতো দফায় ভোট করলো। আমি জানি কার নির্দেশে ঠিক কী ঘটছে। সব খবর পাই আমি। বিজেপি এমন ভাব করছে যেন জিতে গিয়েছে। কমিশন থেকে নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে, নির্বাচনের আগে আমার দলের নেতাদের গ্রেফতার করা হচ্ছে। আমার কাছে সব কিছুর হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট আছে (সাংবাদিকদের দিকে মোবাইল তুলে দেখান তিনি)। ভোটের পরই আমি নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবিতে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন জানাব।”

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *