করোনা রুখতে খোলা বাজারে পশু বিক্রি বন্ধের পরামর্শ হু-এর

Mysepik Webdesk: বিশেষজ্ঞদের একাংশ একাধিকবার দাবি করে এসেছেন, চিনের ইউহান শহর থেকেই গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস। তার পেছনে বিশেষজ্ঞরা দায়ী করেছেন পশু পাখির বাজারকে। সঠিক প্রমান পাওয়া না গেলেও বিষয়টির ওপরে পরোক্ষভাবে আপত্তি জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও। সংস্থার পরামর্শ, বিশ্বে করোনাভাইরাস রুখতে আপাতত বন্ধ করে দেওয়া উচিত পশু বিক্রি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, যেহেতু বহু মানুষের জীবিকা নির্ভর করে ওই সব বাজারের ওপর, সেহেতু গোটা বাজার বন্ধ না করে শুধুমাত্র পশু-পাখি বিক্রি করা আপাতত বন্ধ রাখা উচিত।

আরও পড়ুন: এবার ইংল্যান্ডের স্কুলে সঙ্গীতের সিলেবাসে যুক্ত হল ‘মুন্নি বদনাম হুয়ি’

বিশেষজ্ঞদের একাংশের দাবি, চিনের ইউহান শহর থেকেই গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস। শুধু তাই নয়, চিন সরকারের কাছে তথা গোটা বিশ্বের কাছে এই বিষয়টি প্রথম থেকেই ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে এসেছে হুবেই প্রশাসন। আর বর্তমানে তারই মাসুল গুনতে হচ্ছে গোটা বিশ্বকে। এই বিষয় নিয়ে আমেরিকা, ব্রিটেন-সহ বিশ্বের একাধিক দেশ বারবার চিনের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে। মূলত সেই প্রাণঘাতী ভাইরাসের উৎস সন্ধানে জানুয়ারির গোড়াতেই ১০ জন বিশেষজ্ঞর একটি দল ঘুরে এসেছে চিনের পশু-পাখি বাজারে। তাঁরা জানিয়েছেন, এই ভাইরাসের প্রথম যারা আক্রান্ত হয়েছিলেন তাদের মধ্যে বেশিরভাগই উহানের ওই বাজারের ক্রেতা কিংবা বিক্রেতা।

আরও পড়ুন: করোনা মহামারী কবে শেষ হবে, জানালেন হু প্রধান

মঙ্গলবার করোনাভাইরাস সংক্রান্ত হু-এর নতুন নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, জরুরিভিত্তিতে বিভিন্ন বাজারে জ্যান্ত পশু বিক্রি বন্ধ রাখতে হবে। ওই গাইডলাইনে আরও বলা হয়েছে, বিশেষ করে পশু-পাখি অন্তত ৭০ শতাংশ ক্ষেত্রে মানুষের শরীরে রোগ ছড়ানোর জন্য দায়ী। কারণ বিশেষ করে বন্য পশু-পাখিদের শরীরে বিভিন্ন ধরনের নতুন নতুন ভাইরাস বসবাস করে, যা সহজেই তাদের শরীর থেকে মানুষের শরীরে প্রবেশ করতে পারে। সেক্ষেত্রে বন্য পশুর শরীর থেকে নতুন রোগ ছড়ানোর সম্ভাবনাও বৃদ্ধি পায়।

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *