স্বনির্ভর গোষ্ঠীর লক্ষাধিক টাকা তছরুপের অভিযোগে পঞ্চায়েতে তালা ঝোলাল মহিলারা

Nadia

Mysepik Webdesk: স্বনির্ভর গোষ্ঠীর লক্ষাধিক টাকা তছরুপের অভিযোগে গ্রাম পঞ্চায়েত অফিসের মূল ফটকে তালা ঝোলাল স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারা। ঘটনাটি ঘটেছে নদিয়ার রানাঘাট এক নম্বর ব্লকের অন্তর্গত তারাপুর পঞ্চায়েতে। ওই অঞ্চলের মোট ১৪৬টি স্বনির্ভর গোষ্ঠী বা সমিতি রয়েছে এই পঞ্চায়েতের অধীনে বলে জানা গিয়েছে। সমিতির সদস্যরা জানিয়েছেন এক একটি সমিতিতে দশ থেকে বারো জন করে মহিলা যুক্ত আছেন।

আরও পড়ুন: বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গে এক ভয়ের বাতাবরণ সৃষ্টি হয়েছে: রাজ্যপাল জাগদীপ ধনকার

স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলাদের অভিযোগ নির্বাচনের মাধ্যমেই গঠন করা হয়েছিল কার্যকরী কমিটি। সেই কমিটিতে ১৪৬টি স্বনির্ভর গোষ্ঠী অন্তর্ভুক্ত ছিল। তাঁদের অভিযোগ, ৪২ লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকার সরকারি অনুদান এছাড়াও গোষ্ঠীর সঞ্চিত আরো লক্ষাধিক টাকার প্রায় চার বছর ধরে কোন হিসাব দিচ্ছে না ওই কমিটি।

আরও পড়ুন: খাগড়াগড় মামলায় কওসরের ২৯ বছরের কারাদণ্ড ঘোষণা

এর আগেও কয়েকবার রানাঘাট এক নম্বর ব্লক আধিকারিক ও তারাপুর গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানের নিকট অভিযোগ জানালেও কোন সদুত্তর মেলেনি। এই বিষয় নিয়ে বিরোধী শিবির কটাক্ষ করতে ছাড়েনি। বারংবার দুর্নীতিকে অবলম্বন করে এই পঞ্চায়েত পরিষেবা চালাচ্ছে শাসক দল এমনটাই অভিযোগ সিপিএম ও বিজেপির তরফ থেকে। আজ স্বনির্ভর গোষ্ঠীর সদস্যরা পঞ্চায়েত প্রধানকে ঘিরে দীর্ঘক্ষন ধরে আটকে রেখে বিক্ষোভ দেখায়। অবশেষে ঘটনা নিয়ন্ত্রণ করতে ঘটনাস্থলে আসে রানাঘাট পুলিশ প্রশাসন। স্বনির্ভর গোষ্ঠীর সদস্যদের দাবি নতুন বোর্ড গঠন করতে হবে, সেইসঙ্গে বকেয়া হিসেবও বুঝিয়ে দিতে হবে।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *