ইয়াসের প্রথম বলি, গাছ উপড়ে মৃত্যু কেওনঝড় জেলার এক বৃদ্ধের

Mysepik Webdesk: নির্ধারিত সময়ের আগেই আছড়ে ওড়িশার উপকূলে আছড়ে পড়েছে ঘূর্ণিঝড় ইয়াস। এই ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড়ে দুর্ভাগ্যজনকভাবে প্রথম মৃত্যুর খবরটি কেওনঝড় জেলা থেকে এলো। আনন্দপুর ব্লকের অন্তর্গত পঞ্চপল্লি গ্রামে প্রবল বাতাসে একটি গাছ উপড়ে গিয়ে এক প্রবীণ ব্যক্তি পিষ্ট হয়ে মারা যান। বালাসোর শহরে রেলওয়ে কলোনিতে একটি গাছে উপড়ে গায়ে পড়ে ২০ বছর বয়সি এক ব্যক্তি গুরুতর আহত হয়েছেন। চাঁদিপুর উপকূলে সমুদ্রের জল একটি রিসর্টে পর্যন্ত ঢুকে পড়ে।

আরও পড়ুন: নির্ধারিত সময়ের পূর্বেই আছড়ে পড়ল ঘূর্ণিঝড় ইয়াস

ওড়িশার স্পেশাল রিলিফ কমিশনার পি কে জেনা বলেন, ঘূর্ণিঝড়ের আগে ৫ লক্ষাধিক মানুষকে আশ্রয়কেন্দ্রে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। জেনা আরও বলেন, ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাত জগৎসিংহপুর, কেন্দ্রপাড়া, জাজপুর, ভদ্রক, বালাসোর, মায়ুরভঞ্জ, কটক, ধেঙ্কনাল এবং কেওনঝড় প্রভৃতি হতে পারে। বুধবার পুরী, খুরদা, আঙ্গুল, দেওগড় ও সুন্দরগড়ে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। সমুদ্রের ঢেউ ২-৩ মিটার উঁচু হয়ে বালাসোর, ভদ্রকের নীচু অঞ্চলগুলিকে ডুবে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এর প্রভাব পড়বে মেদিনীপুর, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, কেন্দ্রপাড়া এবং জগৎসিংহপুর জেলাগুলির নীচু অঞ্চলগুলিতেও।

Facebook Twitter Email Whatsapp

এই সংক্রান্ত আরও খবর:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *