ক্রিকেটকে আলবিদা জানালেন ইউসুফ পাঠান

Yusuf Pathan

Mysepik Webdesk: শুক্রবার ভারতীয় অলরাউন্ডার ইউসুফ পাঠান ক্রিকেটের সব ফর্ম্যাট থেকে অবসর নেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন। তিনি জানিয়েছেন যে, তাঁর জীবনের এই ইনিংসটি শেষ করার সময় এসেছে। ইউসুফ ২০০৭ সালে প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ এবং ২০১১ সালে ওয়ানডে বিশ্বকাপ জেতানো দলের অংশ ছিলেন।

আরও পড়ুন: মোহনবাগান ক্লাব ঘুরে গেলেন কিবু ভিকুনা

৩৮ বছর বয়সি এই খেলোয়াড় তাঁর টুইটারে এদিন লিখেছেন, “আজ জীবনের এই ইনিংসটি শেষ করার সময় এসেছে। আমি ক্রিকেটের সমস্ত ফর্ম্যাট থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে আমার অবসর ঘোষণা করছি।“ তিনি লিখেছেন, “আমি আমার পরিবার, বন্ধু, অনুরাগী, দল, কোচ এবং সমগ্র দেশকে তার সমর্থন এবং ভালোবাসার জন্য আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাই।”

প্রাক্তন ভারতীয় ফাস্ট বোলার ইরফান পাঠানের বড় ভাই ইউসুফ ৫৭টি ওয়ানডেতে ১১৩.৬০ স্ট্রাইক রেটে ৮১০ রান করেছেন। যার মধ্যে দু’টি সেঞ্চুরি এবং তিনটি হাফ-সেঞ্চুরি রয়েছে। তিনি ২২টি টি-টোয়েন্টি আন্তর্জাতিক ম্যাচে অংশ নিয়েছিলেন, যেখানে ১৪৬.৫৮-এর স্ট্রাইক রেটে ২৩৬ রান করেছিলেন এবং ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে রাজস্থান রয়্যালস ও কলকাতা নাইট রাইডার্সের শিরোপা জয়েরও অংশ ছিলেন। ২০১২ সালে তিনি ভারতের হয়ে সর্বশেষ ম্যাচটি খেলেন।

আরও পড়ুন: টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে উঠতে গেলে শেষ টেস্টে হারা চলবে না ভারতের

ইউসুফ লিখেছেন, “আমি এখনও সেই দিনের কথা মনে করি যখন আমি প্রথমবারের মতো ভারতীয় দলের জার্সি পরেছিলাম। সেদিন আমি কেবল জার্সিই গায়ে চাপাইনি, আমার পরিবার, কোচ, বন্ধু, গোটা দেশ এবং আমার নিজের প্রত্যাশাকে কাঁধে তুলে নিয়েছিলাম।” তিনি আরও লিখেছেন যে, “ভারতের হয়ে দু’টি বিশ্বকাপ জেতা এবং শচীন তেন্ডুলকরকে আমার তোলা আমার কেরিয়ারের সেরা মুহূর্ত।”

তিনি আরও লিখেছেন, “এম এস ধোনির অধিনায়কত্বে আন্তর্জাতিক ম্যাচে, শেন ওয়ার্নের অধীনে আইপিএলে এবং জ্যাকব মার্টিনের নেতৃত্বে রঞ্জির ট্রফিতে আমার অভিষেক হয়েছিল। আমাকে আমি তাঁদের ধন্যবাদ জানাতে চাই।”

Facebook Twitter Email Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *